1. admin@thedailyintessar.com : rashedintessar :
বুধবার, ১৭ অগাস্ট ২০২২, ০৩:৫৯ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ:

নির্বাচনে জিতলে টাকমাথায় চুল গজানোর প্রতিশ্রুতি

টিডিআই রিপোর্ট:
  • Update Time : শুক্রবার, ২৮ জানুয়ারী, ২০২২

নির্বাচনী লড়াইয়ে নানা প্রতিশ্রুতি দিয়ে থাকেন রাজনৈতিক নেতারা। কেউ কর্মসংস্থান তৈরির কথা বলে, কেউ রাস্তাঘাট, স্কুল-কলেজ বা হাসপাতাল তৈরি করে দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেয়। আমরা এই ধরনের প্রতিশ্রুতির সঙ্গে বেশ পরিচিত। কিন্তু তাই বলে ভোটে জিতে গেলে টাকওয়ালা ব্যক্তির মাথায় চুল গজানোর প্রতিশ্রুতি? সম্প্রতি দক্ষিণ কোরিয়ার আসন্ন রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে একজন নেতৃস্থানীয় প্রার্থীর এমন প্রতিশ্রুতি নজর কেড়েছে। খবর নিউজ এইটিনের।

প্রতিবেদনে বলা হয়, দক্ষিণ কোরিয়ার ক্ষমতাসীন লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী লি জায়ে-মিউং প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন যে নির্বাচনে জিতলে তিনি টাকমাথার মানুষদের মাথায় চুল পড়ার চিকিৎসা ও চুল প্রতিস্থাপনের খরচ বিমার আওতায় নিয়ে আসবেন, বিমার খরচ সরকারি তহবিল থেকে দেয়া হবে।

দক্ষিণ কোরিয়া এমন একটি দেশ, যেখানে জনসংখ্যার একটি উল্লেখযোগ্য নাগরিক চুল পড়ার সমস্যায় ভুগছে। রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে টাক যে এত গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু হয়ে উঠতে পারে তা আগে কখনও ভাবা যায়নি। দক্ষিণ কোরিয়ার ক্ষমতাসীন লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী হিসেবে ভোটের লড়াইয়ে নেমেছেন লি জায়ে-মিউং। তার মাথাভরা চুল রয়েছে। কিন্তু জাতীয় সমস্যা হিসাবে নাগরিকদের চুল পড়ে যাওয়ার বিষয়ে তার নজর পড়েছে। লি যা প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তা হলো চুল প্রতিস্থাপনের বিষয়টি বিমার অন্তর্ভুক্ত করা হবে। বিমার টাকা সরকার দেবে।

তিনি ইতোমধ্যেই সাংবাদিকদের বলেছেন, চুল সংক্রান্ত চিকিৎসা জাতীয় স্বাস্থ্য বিমা কর্মসূচির আওতায় থাকা উচিত। লি ফেসবুকে লিখেছেন, অনুগ্রহ করে চুল পড়ার চিকিৎসায় আপনাদের কী কী অসুবিধা হয়েছে এবং সরকারি নীতিতে কী থাকা দরকার, তা আমাদের জানান। আমি চুলের ক্ষতির চিকিৎসার বিষয়ে একটি নিখুঁত নীতি নিয়ে আসবো।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, বার্ধক্যজনিত এবং বংশগত কারণে চুল পড়ার সমস্যা বর্তমানে সরকার-সমর্থিত বিমা প্রকল্পের আওতায় নেই। শুধুমাত্র কিছু রোগের কারণে চুল পড়ে গেলে চিকিৎসার খরচ বিমা সংস্থা দিয়ে দেয়। চুল পড়ার সমস্যার বিরুদ্ধে লড়াই করতে দক্ষিণ কোরিয়ানদের বিদেশ থেকে ওষুধ অর্ডার করতে হয় অথবা বিকল্প হিসেবে প্রোস্টেট ওষুধের আশ্রয় নিতে হয়। চুল পড়ে যাওয়া এই দেশে গুরুতর সমস্যা। লি তার একটি ফেসবুক পোস্টে বলেছেন, আমি সর্বজনীন স্বাস্থ্য বিমাকে চুল পড়ার চিকিৎসায় ব্যবহৃত ওষুধের ক্ষেত্রেও প্রসারিত করবো। গুরুতর ক্ষেত্রে চুল প্রতিস্থাপনের বিষয়টিও বিবেচনা করবো।

সংবাদটি সংরক্ষন করতে সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন..

Leave a Reply

এই বিভাগের আরও খবর...

© All rights reserved  2021 The Daily Intessar

Developed ByTheDailyIntessar
error: Content is protected !!