1. admin@thedailyintessar.com : rashedintessar :
বৃহস্পতিবার, ১১ অগাস্ট ২০২২, ১২:২১ পূর্বাহ্ন

যারা মেয়েটির হিজাব পরা নিয়ে ব্যর্থ চেষ্টা করেছে ওই গুন্ডাদের ধিক্কার জানাই -ভারতীয় লেখক

টিডিআই রিপোর্ট :
  • Update Time : শনিবার, ১২ ফেব্রুয়ারী, ২০২২

হিজাব নিয়ে বর্তমানে ভারতের রাজনীতি থেকে সর্বক্ষেত্রেই পরিস্থিতি উত্তাল। এই বিতর্কে মুখ খুলেছেন দেশের রাজনৈতিক নেতা থেকে সেলিব্রিটি সকলেই। তবে আলোচনা চলছে বলিউডের ‘কনট্রোভার্সি কুইন’ খ্যাত কঙ্গনা রানৌতের মন্তব্য নিয়ে। হিজাব ইস্যু নিয়ে তার করা একটি মন্তব্যের সরাসরি জবাব দিয়েছেন সাবেক লোকসভার সংসদ সদস্য ও অভিনেত্রী শাবানা আজমি। খবর জি নিউজের।

হিজাব নিয়ে ইনস্টাগ্রাম পোস্টে কঙ্গনা লিখেছেন, ‘যদি সত্যিই সাহস দেখাতে হয়, তাহলে আফগানিস্তানে গিয়ে বোরখা না পরে দেখান। স্বাধীনভাবে থাকতে শিখুন, খাঁচায় নিজেকে বন্ধ করে রাখবেন না।’

তার এই লেখা নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে পোস্ট দিয়ে শুক্রবার (১১ ফেব্রুয়ারি) ক্যাপশনে শাবানা আজমি লিখেছেন, ‘ভুল হলে আমাকে সংশোধন করে দেবেন। কিন্তু আফগানিস্তান একটি ধর্মতান্ত্রিক রাষ্ট্র এবং আমি শেষবার যা দেখেছি তাতে মনে হয় ভারত একটি ধর্মনিরপেক্ষ গণতান্ত্রিক প্রজাতন্ত্র? !!”

লেখার শেষে একটি প্রশ্নবোধক চিহ্ন যুক্ত করে যেনো কঙ্গনার দিকেই আঙুল উঁচিয়েছেন শাবানা। যদিও এখনও এর কোনো জবাব দেননি কঙ্গনা।

এর কিছুদিন আগে এই বিষয়ে নিজের মন্তব্য প্রকাশ করেছিলেন ভারতীয় লেখক ও শাবানা আজমির স্বামী জাভেদ আখতার। জাভেদ তার টুইটার হ্যান্ডেলে লেখেন, ‘আমি কখনই হিজাব বা বোরখা পরার পক্ষে ছিলাম না। আমি এখনও এই মতবাদেই বিশ্বাসী। কিন্তু একইসঙ্গে এই গুন্ডারা, যারা একটি মেয়েকে হিজাব পরার জন্য ভয় দেখানোর চেষ্টা করে এবং ব্যর্থ হয়, তাদের জন্য ধিক্কার। এটাই কী তাদের কাছে পুরুষত্বের ধারণা?’

উল্লেখ্য, গত ৫ ফেব্রুয়ারি কর্ণাটক সরকার স্কুল-কলেজে সব ধরনের ধর্মীয় পোশাক পরার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করার পর থেকেই শুরু হয় বিতর্ক। এ নিয়ে এখনও মামলা চলমান আদালতে। তবে চূড়ান্ত রায় না আসা পর্যন্ত হিজাব ও গেরুয়া উত্তরীয় পরার ওপর নিষেধাজ্ঞা বহাল রেখেছে দেশটির আদালত।

সংবাদটি সংরক্ষন করতে সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন..

Leave a Reply

এই বিভাগের আরও খবর...

© All rights reserved  2021 The Daily Intessar

Developed ByTheDailyIntessar
error: Content is protected !!